Home / News / দেশে আরো ১৮২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত। মোট ৮০৩ জন

দেশে আরো ১৮২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত। মোট ৮০৩ জন

বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ১৮২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। সব মিলিয়ে দেশে শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৮০৩ জনে।

সোমবার (১৩ এপ্রিল) দুপুর আড়াইটার দিকে করোনাভাইরাস নিয়ে অনলাইনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫ জন। সব মিলিয়ে মৃত্যু হয়েছে মোট ৩৯ জনের। নতুন করে তিনজন সুস্থ হয়ে ফিরেছেন। সব মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৪২ জন।

এর আগে গতকাল রোববার নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে আইইডিসিআর একদিনে ১৩৯ জন করোনা রোগী শনাক্তের কথা জানিয়েছিল। গতকাল পর্যন্ত মোট মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৩৪।

বাংলাদেশে ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর ধাপে ধাপে বাড়তে থাকে শনাক্ত রোগী। গেল ৯ এপ্রিল ২৪ ঘণ্টায় দেশে শতাধিক করোনা সংক্রমিত রোগী শনাক্তের কথা জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)। এরপর থেকে শনাক্তের সংখ্যা কিছুটা কমলেও বাড়ে মৃত্যুর সংখ্যা।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে আরও ৯ বাংলাদেশিসহ একদিনে দেড় হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় ১৩১ জন বাংলাদেশিসহ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২ হাজার ১০৫ জনে দাঁড়ালো। আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৬০ হাজারের বেশি মানুষ।

যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে কোভিড উনিশে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কিছুটা কমলেও নিউইয়র্কে যেন কোনো ভাবেই থামছে না মৃত্যুর মিছিল। রোববারও (১২ এপ্রিল) বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি মারা গেছেন। এরমধ্যে ভার্জিনিয়ায় মারা গেছেন এক বাংলাদেশি। নিউইয়র্কের বাইরেও বিভিন্ন স্থান হট স্পট হয়ে উঠেছে করোনাভাইরাসের।

এছাড়া স্পেনে করোনায় একদিনে ৬০৩ জন মারা গেছেন। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১ লাখ ৬৬ হাজার। এদের মধ্যে ১২৭ জন বাংলাদেশি। প্রতিবেশী পর্তুগালে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫০৪। আক্রান্ত হয়েছেন ৮ বাংলাদেশি। সংক্রমণরোধে হোম কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ বাড়তে থাকায় নানা সঙ্কটে আছেন দু’দেশের প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

এদিকে প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সারা বিশ্বে সাড়ে ১৮ লাখেরও বেশি করোনা রোগী শনাক্তের খবর পাওয়া গেছে। মারা গেছেন ১ লাখ ১৪ হাজারের বেশি।

About Abdullah

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *